রোবটের মাধ্যমে যেভাবে হবে আগামীর পার্কিং ম্যানেজমেন্ট

রোবটের মাধ্যমে যেভাবে হবে আগামীর পার্কিং ম্যানেজমেন্ট

পড়তে সময় লাগবে: 4 মিনিট...

মিঃ হাসিব সাহেব বড় ব্যবসায়ি। ব্যবসার কাজে বিভিন্ন সময় তাকে দেশের বাইরে যেতে হয়। প্রতিবারের মত এবারও তিনি বিদেশ গমনের উদ্দেশ্যে বাসা থেকে বের হয়েছেন। কিছুটা সময় এক্সট্রা হাতে নিয়েই তিনি বের হয়েছেন; যেন আরাম করে ফ্লাইট ধরতে পারেন। কিন্তু রাস্তায় বের হয়ে হাসিব সাহেবের চোখ তো চড়ক গাছ! রাস্তার জ্যাম দেখে মনে হছে ১ ঘন্টায় ছাড়বে না। এ দিকে চিন্তায় তার ঘাম ঝরছে, ফ্লাইট না মিছ হয়ে যায়। কোন মতে জ্যাম ঠেলে বিমান বন্দর এসে পৌছলেন। বিমান বন্দরে এসে পড়লেন আরেক ঝামেলায়, গাড়ি পার্কিং এর বিশাল লাইন। ফ্লাইটের বাকি মাত্র কয়েক মিনিট, অনেক কষ্ট করে গাড়ি পার্ক করে দৌরে গিয়ে ইমিগ্রেশনের ফর্মালিটি শেষ করে ফ্লাইট ধরলেন। আর একটু দেরি হলেই আজকের ফ্লাইট মিস হয়ে যেত।

বিমানে বসা পাশের ভদ্র লোকের সাথে এমন কষ্টের কথা আলোচনা করছিলেন মিঃ হাসিব সাহেব । আর মনে মনে ভাবছিলেন যদি এমন হতো যে, গাড়ি নিয়ে একটা নির্দিষ্ট স্থানে রাখলাম, গাড়ির দায়িত্ব একটি স্বয়ংক্রিয় রোবটের কাছে দিয়ে নিশ্চিন্তে থাকতে পারতাম। সে একটি নিরাপদ যায়গায় পার্ক করে রাখতো।

এমন হলে ভালোই হতো গাড়ি পার্কিং এর ঝামেলা থেকে রেহাই পাওয়া যেত।

তবে এবার আর ভাবনায় নয়। বাস্তবে এমনটিই হতে যাচ্ছে। রোবট ভ্যালেট আপনার গাড়ি পার্কিংয়ের দায়িত্ব নিতে যাচ্ছে। এ বছরের আগস্ট মাস থেকেই লন্ডনের দ্বিতীয় বৃহত্তম গ্যাটউইক বিমানবন্দরে মিলতে পারে এ সেবা। ক্রাউলি বরো কাউন্সিলে বিমানবন্দরটির দাখিলকৃত একটি আবেদন অনুসারে, বিমানবন্দরটি গাড়ি পার্কিংয়ের এই সেবা নিয়ে তিন মাসের একটি পরীক্ষা চালানোর পরিকল্পনা করেছে। আশা করা হচ্ছে এই পদ্ধতিতে বিমানবন্দরটি কম জায়গায় অনেক বেশি গাড়ি পার্ক করতে সক্ষম হবে।

রোবট ভ্যালেট সিস্টেম কিভাবে কাজ করেঃ

রোবট ভ্যালেট পার্কিং সিস্টেম হলো একটি পদ্ধতি যেখানে একটি যায়গায় আপনি আপনার গাড়ি রাখবেন, এরপর রোবট গাড়ি নিয়ে নির্দিষ্ট স্থানে পার্কিং করে রাখবে এবং যখন গাড়ির মালিকের প্রয়োজন হবে তখন রোবট গাড়িটি নিয়ে হাজির হবে।

এই সম্পূর্ণ কাজটি করে রোবট। এ ক্ষেত্রে মানুষের কোন প্রয়োজন নেই ফলে কাজটি করতে কোন প্রকারের ঝামেলা বা সময়ক্ষেপনের প্রয়োজন হবে না।

রোবট ভ্যালেট স্ট্যানঃ

রোবট ভ্যালেট পার্কিং পদ্ধতি বাস্তবে প্রয়োগের জন্য ফ্রান্সের স্ট্যানলি রোবোটিকস কোম্পানি যে রোবটটি বানিয়েছে তারই নাম দেওয়া হয়েছে স্ট্যান। এর পুরোটিই ইলেক্ট্রিক এবং স্বয়ংক্রিয়। এটিই মূলত একটি রোবটিক গাড়ি। তবে এই রোবটিক গাড়িটি স্বনিয়ন্ত্রিত। কোনো চালক ছাড়াই কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা প্রযুক্তি ব্যবহার করে অন্য গাড়িগুলো পার্ক করে রোবটটি। নির্মাতাদের মতে, এটি কখনোই নষ্ট হবে না। গাড়ি পার্কিংয়ের জন্য এটিই পৃথিবীর প্রথম রোবট।

কিভাবে কাজ করে এই রোবট ভ্যালেট স্ট্যানঃ

এই সম্পূর্ন কাজটিই হবে কোন মানুষের সাহায্য ছাড়া। খুব স্বয়ংক্রিয় ভাবে, আধুনিক সব প্রযুক্তি ব্যবহার করে ভ্যালেট স্ট্যানটি কোন ব্যাক্তির দেওয়া গাড়িটি নিয়ে একটা নিরাপদ স্থানে রেখে দিবে।

১) প্রথমে গাড়িটি নির্দিষ্ট স্থানে রাখতে হবেঃ

পার্কিং এরিয়ার সবচেয়ে সহজতম জায়গায় গাড়ি রাখার জন্য অনেকগুলো বক্স সাজানো থাকবে। সেই বক্সের ভেতর গাড়িটি রাখতে হবে। সেখানে গাড়ি রেখে নিজের মালামাল নিয়ে আপনি প্লেনের উদ্দেশ্যে চলে যাবেন। গাড়ি পার্কিংয়ের এ সেবায় রোবট আপনার গাড়ির চাবি চাইবে না। আপনার চাবি আপনার কাছেই থাকবে।

২) গাড়ি রাখার তথ্যটি পৌছে দিতে হবে রোবটের কাছেঃ

আপনি যে বক্সের ভেতর গাড়িটি রাখলেন সেইটা নিশ্চিত এর জন্য অনলাইনের মাধ্যমে রোবটকে জানিয়ে দিতে হবে। এর জন্য আপনাকে কিছু তথ্য প্রদান করতে হবে, যা আপনি কিউআর কোডের মাধ্যমে করতে পারবেন কয়েকটা ক্লিকেই। এটা করতে আপনার সময় লাগবে মাত্র কয়েক সেকেন্ড।

৩) রোবট আসবে গাড়ি নিতেঃ

এ পর্যায়ে রোবট চলে আসবে আপনার গাড়ির কাছে। রোবটটি পুরোটাই স্বয়ংক্রিয়ভাবে চলবে। এজন্য কোনো চালকের প্রয়োজন পড়বে না। আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স ব্যাবহার করে রোবটটি আপনার টার্মিনালে প্রদানকৃত তথ্য অনুযায়ী আপনার গাড়ির কাছে চলে যাবে। রোবট পৌঁছানোমাত্র বক্সের গেটটি খুলে যাবে। এরপর রোবটটির পেছনের অংশ অর্থাৎ গাড়ি বহনকারী অংশটি গাড়ির নিচ দিয়ে স্লাইড করে ঢুকে যাবে। রোবটের উপর গাড়িটি বসে গেলে রোবটটি রওনা দেবে উত্তম জায়গায় গাড়িটি পার্ক করে রাখার জন্য।

৪) নির্দিষ্ট স্থানে গাড়ি পার্ক হয়ে যাবেঃ

সহজতম পথ ব্যবহার করে রোবটটি আপনার গাড়িকে নিরাপদ জায়গায় পার্ক করে রেখে দেবে। পার্কিং এরিয়ার ভেতর কোনো মানুষ ঢুকতে পারবে না। শুধুমাত্র রোবট ভ্যালেটই ঢুকতে পারবে। এর ফলে গাড়ি হারিয়ে যাওয়ার যেমন ভয় নেই, তেমনি ভয় নেই গাড়ির কোনো অংশ ক্ষতি হওয়ার। কারণ রোবট তার বুদ্ধিমত্তা কাজে লাগিয়ে অন্য কোনো গাড়ির সাথে স্পর্শ না করিয়ে নির্দিষ্ট জায়গায় গাড়ি পার্ক করবে।

৫) ফেরার সময় গাড়ি থাকবে আপনার জন্য প্রস্তুতঃ

যেহুতু আপনি গাড়ি রাখার সময় নির্দিষ্ট কিছু তথ্যা অনলাইনের মাধ্যমে দিয়ে দিয়েছেন, এর মধ্যে আপনার ফেরার ডেট সহ যাবতীয় তথ্য ছিল। এই তথ্য কাজে লাগিয়ে উক্ত রোবটটি আপনার ফেরার সময় গাড়িটি প্রস্তুত করে রাখবে। আপনাকে শুধু নির্দিষ্ট বক্সে আসতে হবে। গাড়ি পার্কিং থেকে যে অতিরিক্ত সময় লাগতো এই সময় লাগবে না।

ভ্যালেট পার্কিং পদ্ধতিতে রোবট আপনার গাড়িকে একেবারেই সংরক্ষিত এলাকায় নিয়ে রাখবে। চাবিটিও থাকবে আপনার কাছে। ফলে গাড়ি নিয়ে দুশ্চিন্তা বাদ দিলেও চলবে। আর পার্কিং এরিয়াটি সংরক্ষিত হওয়ার কারণে কোনো অতিরিক্তি পুলিশ বা গার্ডের দরকার পড়বে না। এতে অতিরিক্তি লোক নিয়োগ করতে হবে না বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষকে। আর পার্কিং এরিয়ার ভেতরে জনসাধারণের প্রবেশও নিষেধ থাকবে। পুরো প্রক্রিয়াটিই করবে রোবট এবং পুরোটিই হবে স্বচ্ছ ও স্বয়ংক্রিয়ভাবে।

 68 total views,  2 views today

Share your vote!


Related Posts

To Buy Prohori

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

© 2021